মাথাব্যথা হলেই কি ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ

ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ অনেকেই ব্রেইন টিউমারের সমস্যায় ভুগছে।

আজ আমরা  বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছ থেকে ব্রেইন টিউমার সমস্যা ও তার প্রতিকার সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।
স্বাস্থ্য প্রতিদিনের একটি পর্বে ব্রেইন টিউমার সমস্যা ও তার প্রতিকার সম্পর্কে বলেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরো সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করে ডা. মুনা তাহসিন।  ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ

আমরা জানি ব্রেইন টিউমার অপারেশনের পর পর রোগী স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারে?

সঞ্চালকের এ প্রশ্নের জবাবেই অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন বলে, টিউমার যদি ছোট হয়, তাহলেই অপারেশন-পরবর্তী জটিলতা একেবারে নেই বললেই চলে। টিউমার যদি বড় হয়, সেই ক্ষেত্রে ব্রেইনের অনেক টিস্যুকেই ইনভলভ করে,

অনেক নার্ভকে ইন-ভলভ করার সম্ভাবনা থাকেন। তো সেই ক্ষেত্রে টিউমার রিমুভ করতে গেলেই যদি আমরা দেখি যে, ভাইটাল কোনো নার্ভ ও ইনজুরি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, তখনই একটু টিউমার ওখানে রেখে দিয়ে আসি আমরা। অর্থাৎ পুরোপুরি রিমুভ না করে আংশিক করি।

আর সব মাথাব্যথা কি  তাহলে ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ বা এতে ভয় পাওবার কিছু আছে কি না তা জানতে চাওয়া হয়, এ প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন বলে যে, মাথাব্যথা হলে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই তো। আর এই পৃথিবীতে এমন কোনও মানুষ নেই, তার জীবনে কখনও মাথাব্যথা হয় নি। এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া বড় দুস্কর।

বেশির ভাগ মাথাব্যথা হলো সাধারণ মাথাব্যথা। এটা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছুই নেই। তবে মাথা ব্যথার সঙ্গে যদি খিঁচুনি হয়, বা মাথাব্যথার সঙ্গে যদি এক দিকে হাত-পা অবশ হয়ে আসে, মাথাব্যথার সঙ্গে যদি রোগীর চোখে দেখতে অসুবিধা হয় থাকে, মাথাব্যথার সঙ্গে যদি দেখা যায় সে হাঁটতে পারছেই না, এক দিকে পড়ে যাচ্ছে তাহলে এ ধরনের উপসর্গ থাকলে গুরুত্ব সহকারে চিন্তাই করতে হবে এবং ডাক্তারের শরণাপন্ন হতেই হবে।

ব্রেন টিউমার রোগীর লক্ষণ

ব্রেন টিউমারের লক্ষণ নানা ধরণের হয়ে থাকে। প্রধান বা স্বাভাবিক লক্ষণ হলো মাথাব্যথা। এই মাথাব্যথা রোগীর কর্মকাণ্ডের সাথে তীব্র হয়ে থাকে। অর্থাৎ রোগী যখন বিশ্রামে থাকলে মাথাব্যথা কম থাকে। আর কোন কাজ করলে তীব্রতা বাড়ে যাই। অনেক সময় ভোরে মাথাব্যথাটা বেশি হয়ে থাকে।

এর পাশাপাশি রোগীর বমি বমি ভাব হওয়া বা বমি হওয়া এবং দৃষ্টিশক্তি ক্রমশ কমে যাওয়াকেই আমরা সব টিউমারের ক্ষেত্রে লক্ষণ হিসেবে ধরে থাকি ।

এ ছাড়াও তো অনেক সময় রোগীর অন্যন্য লক্ষণও দেখা দিতেই পারে।

খিঁচুনি হতে পারে

শরীরের যেকোনো একদিকের হাত বা পা দুর্বল বা অবশ হয়ে যেতে পারে।

আবার  মানসিক অবস্থার পরিবর্তন হতেই পারে অর্থাৎ তার আচরণে অস্বাভাবিকতা দেখাও দেবে।

ব্রেন টিউমারের ঝুঁকিতে কারা আছেন?

এ রকম করে কাউকে নির্দিষ্ট করে বলা যায় না। যেকোন মানুষ ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হতেই পারেন।

ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ
ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ

Leave a Reply

Your email address will not be published.